এবার সংসারী হয়েও গুগলে চান্স পেলেন নর্থসাউথের ছাত্রী

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র মোহাম্মদ সামিউল আলম গুগলে চান্স পাওয়ার পর চলে গিয়েছিলেন লন্ডনে। সামিউলকে বিয়ে করে তার সঙ্গে লন্ডনে দেশে চলে গিয়েছিলেন নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটির ছাত্রী নাবিলা আহমেদ।

একদিকে পড়াশোনা অন্যদিকে সংসার। সবকিছু সামলে তিনি নিজের সেরাটা দেখিয়েছেন। যোগ্যতা প্রমাণ করে এবার তিনিও ডাক পেয়েছেন গুগলে।

গুগলের সফটওয়্যার প্রকৌশলী হিসেবে সুযোগ দেয়া হয়েছে তাকে। শিগগিরিই তিনি গুগলের লন্ডন অফিসে যোগ দেবেন বলে জানা

গেছে। নাবিলার সহপাঠীরা জানান, নর্থসাউথ ইউনিভার্সিটি থেকে এই প্রথম কোন ছাত্রী গুগলে চান্স পেয়েছেন। এর আগেও ওই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বেশ কয়েকজন গুগলে চান্স পেয়েছেন। তবে ছাত্রী হিসেবে নাবিলাই প্রথম।

জানা গেছে, নাবিলা বর্তমানে থটওয়ার্কস নামে একটি কোম্পানীতে ডেভেলপার হিসেবে কাজ করছেন। এর আগে তিনি NewsCred নামে আরেকটি প্রতিষ্ঠানে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কাজ করেছেন। উল্লেখ্য, বাংলাদেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা শেষে বেশ

কয়েকজন মেধাবী শিক্ষার্থী বর্তমানে গুগলে কাজ করছেন। গত সপ্তাহে অনিক সরকার নামে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) এক শিক্ষার্থী গুগলে ডাক পেয়েছিলেন। তিনি বুয়েট থেকে ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট হয়েছিলেন। তথ্যসূত্রঃ ক্যাম্পাসলাইভ

Leave a Reply

Your email address will not be published.