এইচএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার্থীদের নকল ঠেকাতে নেওয়া হলো যে পদ্ধাতি

এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনেমেন্টে নকল ধরা পড়লে তা বাতিল করা হবে। তাই শিক্ষার্থীরা অ্যাসাইনমেন্ট নকল করছে কি না বা নিজ হাতে অ্যাসাইনমেন্ট করে জমা দিচ্ছে কি না, তা মনিটরিংয়ের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

এ জন্য নকল ঠেকানোর উদ্যোগ নিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি)।

দেশের সরকারি-বেসরকারি স্কুল-কলেজের প্রধান শিক্ষক ও অধ্যক্ষদের নিয়ে দুটি নির্দেশনা জারি করেছে মাউশি।

শিক্ষা অধিদফতর বলছে, ‘অ্যাসাইনমেন্ট মনিটরিং কমিটি’ গঠন করতে হবে। এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম যথাযথ পরিচালিত হচ্ছে কি না, তা সরেজমিনে মনিটরিং করবে এই কমিটি।

এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের প্রতিষ্ঠানপ্রধানদের নেতৃত্বে এ কমিটি গঠন করা হবে। এ কমিটির নেতৃত্বে থাকবে মাধ্যমিক পর্যায়ের সরকারি–বেসরকারি শিক্ষাপ্রধানগণ।

গত ১৫ জুলাই এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার সময়ের ঘোষণা দিয়ে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি ভার্চ্যুয়াল সংবাদ সম্মেলনে জানান, এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ১২ সপ্তাহে ২৪টি অ্যাসাইনমেন্ট দেয়া হবে। তারা প্রতি সপ্তাহে দুটি করে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেবে। এসএসসির ক্ষেত্রে প্রতিটি নৈর্বাচনিক বিষয়ে মোট আটটি করে অ্যাসাইনমেন্ট করতে হবে। এর মাধ্যমে সংক্ষিপ্ত পাঠ্যসূচি শেষ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *