Ola ইলেকট্রিক স্কুটারের বিক্রি শুরু আগামিকাল থেকে, কেনা যাবে ২,৯৯৯ টাকার মাসিক কিস্তিতে

Ola Electric Scooter sale: ওলার ইলেকট্রিক স্কুটার বুকিংধারীদের জন্য সুখবর। বুকিংকে এবার তারা সরাসরি পারচেজ অপশনে বদলে ফেলতে পারবেন।

অর্থাৎ গত জুলাইয়ে ৪৯৯ টাকা দিয়ে যাঁরা স্কুটার রিজার্ভ করেছিলেন, তাঁরা কালার অপশন ও ভ্যারিয়েন্ট পছন্দ করার পর বাকি টাকা পেমেন্ট করে ই-স্কুটারটি কেনার সুযোগ পাবেন।

Ola S1 ইলেকট্রিক স্কুটারের বিক্রি শুরু হচ্ছে আগামিকাল থেকে। এই মুহূর্তে ক্রেতাদের কাছে পর্যাপ্ত টাকা না থাকলেও অসুবিধা নেই. দেশের একাধিক ব্যাঙ্ক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জোট বেঁধে ক্রেতাদের জন্য লোনের বন্দোবস্ত করে ফেলেছে ওলা।

এইচডিএফসি ব্যাঙ্ক, আইসিআইসিআই ব্যাঙ্ক, অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক, আইডিএফসি ফার্স্ট ব্যাঙ্ক, ইয়েস ব্যাঙ্ক, টাটা ক্যাপিটালের মতো ব্যাঙ্ক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সাথে হাত মিলিয়েছে ওলা। আপাতত অনলাইনেই মিলবে ওলার ইলেকট্রিক স্কুটার কেনার সুবিধা৷ শো-রুম বা ডিলারশিপে অযথা যাওয়ার প্রয়োজন পড়বে না।

ওলা ইলেকট্রিকের চিফ মার্কেটিং অফিসার ভরুন দুবে সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, “গ্রাহকদের কাছে অনলাইনে Ola S1 ইলেকট্রিক স্কুটার কেনার প্রক্রিয়াটি অত্যন্ত স্মুদ হবে বলে মনে হয়।

ফাইন্যান্সিং অপশন নেওয়ার সুবিধাও ওয়েবসাইটে দেওয়া থাকবে। লোনের পরিমাণ কত, লোনের জন্য কী করতে হবে – সমস্ত বিবরণ পেয়ে যাবেন ক্রেতারা। এছাড়াও খুব আকর্ষণীয় ফাইন্যান্সিং অপশন দিচ্ছি আমরা। ইএমআই স্কিম শুরু হচ্ছে মাত্র ২,৯৯৯ টাকা থেকে।”

প্রসঙ্গত, গত ১৫ অগাস্ট, S1 ও S1 Pro ভ্যারিয়েন্টে আত্মপ্রকাশ ঘটেছিল ওলা ইলেকট্রিক স্কুটারের। S1-এর দাম রাখা হয়েছিল ৯৯,৯৯৯ টাকা৷ অন্য দিকে, S1 Pro-র দাম ধার্য্য করা হয়েছিল ১,২৯,৯৯৯ টাকা।

দুবে জানিয়েছেন, অক্টোবরের পর থেকে স্কুটারগুলির ডেলিভারি শুরু হবে। এবং কোম্পানি সরাসরি গ্রাহকদের বাড়িতে সেগুলি পৌঁছে দেবে৷ ওলার লক্ষ্য, দেশজুড়ে ১,০০০ নগর ও শহরে তাদের ইলেকট্রিক স্কুটারের ডেলিভারি করা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *