পানির দামে বিক্রি হচ্ছে আলু!

আলু উৎপাদনের শীর্ষ জেলা মুন্সীগঞ্জে পাইকারি দরে বিক্রি হচ্ছে আলু। উৎপাদনে ১৮ থেকে ২০ টাকা খরচ হলেও কেজিতে বিক্রি হচ্ছে ৬ থেকে ৯ টাকা। লোকসানে পড়েছেন কৃষক। মুন্সীগঞ্জের হিমাগারগুলোর শেডভর্তি আলু এভাবেই পড়ে আছে। নেই পাইকার বা ক্রেতা।

তাদের দাবি, উৎপাদন ও হিমাগার ভাড়াসহ সংরক্ষণে ব্যয় হয় কেজিপ্রতি ১৮ থেকে ২০ টাকা। সংরক্ষণকারীরা বলছেন, এক কেজি আলুর দাম পড়ছে ১৮-২০ টাকা। এখন সেই আলু ৬-৮ টাকায় বিক্রি করতে হচ্ছে।

জরুরি ভিত্তিতে আলু রপ্তানি বা বহুমুখী ব্যবহার নিশ্চিতের আহ্বান জানিয়েছেন মুন্সীগঞ্জ জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক খুরশীদ আলম। তিনি বলেন, আলুর পাশাপাশি চালকুমড়া, লাউ, শিম শসা সারা বছরই পাওয়া যাচ্ছে।

যার কারণে আলুর যে ব্যবহার তা স্বাভাবিকভাবেই কমে যাচ্ছে। সেক্ষেত্রে যদি আমরা আলুর উৎপাদনটাকে ধরে রাখতে চাই তাহলে সবজির পাশাপাশি আলুর বিকল্প ব্যবহার বাড়াতে হবে। এবার ৩৭ হাজার ৮৫০ হেক্টর জমিতে প্রায় ১৩ লাখ মেট্রিক টন আলু উৎপাদন হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *