শাকিব খান থাকলে কোনো ছাত্র-ছাত্রী সিনেমা হলে যায় না

সিনেপ্লেক্সে শাকিব খান থাকলে কোনো ছাত্র-ছাত্রী সিনেমা দেখতে হলে যায় না- এমনটাই মন্তব্য করেছেন প্রযোজক সেলিম খান। সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি শাকিব খানকে সুপারস্টার মানতে নারাজ বলে জানিয়ে দেন।

শুক্রবার চাঁদপুরে শাপলা মিডিয়ার প্রযোজিত ‘প্রিয়া রে’ সিনেমার শুটিং সেটে উপস্থিত সাংবাদিকদের কাছে এমন মন্তব্য করেন এই প্রযোজক।

আরিফিন শুভ ও সিয়াম আহমেদ সম্পর্কে সেলিম খানের ভাষ্য, “সরকার প্রায় ১০০ কোটি টাকা দিয়ে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে বায়োপিক সিনেমা নির্মাণ করছে। আপনারা জানেন, অল টিম মুম্বাই থেকে আনা হয়েছে।

আমি এই সিনেমাটা সম্পর্কে একজন প্রযোজক হিসেবে খোঁজ নিয়ে দেখেছি… আরিফিন শুভ অনেক ভালো কাজ করেছে। ইতিমধ্যে সে (শুভ) আমাদের প্রযোজনায় ‘নূর’ নামের একটি সিনেমায় কাজ করছে।

আমি মনে করি, ‘নূর’ এবং বায়োপিক মুক্তির পর বাংলাদেশের জনগণ মনে করবে, সুপারস্টার আরিফিন শুভ। আর ‘অপারেশন সুন্দরবন’ দেখে বাংলাদেশের জনগণ মনে করবে সিয়াম সুপারস্টার…। শুভ-সিয়াম দুজনকে মনে করি ভবিষ্যতের না, বর্তমানেই সুপারস্টার।”

প্রযোজক বলেন, এই সুপারস্টার নিয়ে সিনেমায় লস। কলকাতায় ওনার সিনেমার স্যাটেলাইট ভ্যালু নাই। ২০ লাখের বেশি নাই। এখন তো নেয়ই না। এখন যদি আমি বাংলাদেশের নতুন কোনো আর্টিস্ট নিয়ে কলকাতার কোনো আর্টিস্টের সঙ্গে সিনেমা করি, তাহলে স্যাটেলাইট ভ্যালু পাই এক কোটি টাকা। আর যখনই জানবে সেখানে শাকিব খান আছে, নেবে না। আবার দেখেন সিনেপ্লেক্সে শাকিব খান থাকলে কোনো ছাত্র-ছাত্রী সিনেমা দেখতে হলে যায় না।

শাকিব খান প্রসঙ্গে তাঁর ভাষ্য, ‘শাকিব খান- তাঁর যেহেতু একের পর এক সিনেমা ডাউনে যাচ্ছে, দর্শক দেখছে না। তাঁকে আমি সুপারস্টার মনে করি না।’

এ বিষয়ে শাকিব খানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও তাঁর বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

শাকিব খানকে ‌‘আমি নেতা হবো’ সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ করে প্রথম আলোচনায় আসে প্রযোজনা সংস্থা শাপলা মিডিয়া।

এরপর শাকিবকে নায়ক করে ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়া’, ‘ক্যাপ্টেন খান’ ও ‘শাহেনশাহ’ সিনেমা নির্মাণ করে বাংলাদেশে একটি শক্ত অবস্থান তৈরি করেছিল প্রযোজনা সংস্থাটি। কিন্তু শাকিব নিজের প্রযোজনা সংস্থা থেকে নিয়মিত সিনেমা করার পর শাপলা মিডিয়া ও শাকিবের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *