এক চার্জে যাবে 750 কিমি, বৈদ্যুতিক গাড়ির নমুনা দেখাল iPhone প্রস্তুতকারী সংস্থা

সবচেয়ে বেশি সংখ্যায় আইফোন (iPhone) তৈরি করে বিশ্বের প্রথম সারির বৈদ্যুতিন পণ্য প্রস্তুতকারকের তালিকায় উঠে এসেছে ফক্সকন (Foxconn)।

সরবরাহের বরাত নিয়ে অন্য সংস্থার হয়ে পণ্য তৈরিতে আজ ফক্সকন একটি ভরসাযোগ্য ও বিশ্বস্ত নাম। তবে আজীবন সেই একই ধরনের পণ্য তৈরির ভূমিকা পালনে নারাজ সংস্থাটি।

যার ফলে এবার উদীয়মান বৈদ্যুতিক গাড়ি (Electric Car) তৈরি ব্যবসায় প্রবেশ করতে চলেছে ফক্সকন। তাইওয়ানের ইউলুন মোটর (Yulon Motor)-এর

সাথে একটি জয়েন্ট ভেঞ্চার প্রতিষ্ঠা করেছে তারা। দুই সংস্থা যৌথ উদ্যোগে এবার বৈদ্যুতিক শক্তিতে চলা দু’টি যাত্রী গাড়ি এবং একটি বাসের প্রটোটাইপ বা নমুনা মডেল উন্মোচন করেছে।

গতকাল ফক্সকনের HHTD21 ইভেন্টে প্রটোটাইপ মডেল তিনটির উপর থেকে পর্দা তোলা হয়েছে – মডেল ই (Model E) নামে একটি লাক্সারি সেডান,

মডেল সি (Model C) বলে একটি এসইউভি, এবং মডেল টি (Model T) নামে একটি যাত্রী পরিবহনকারী বাস। প্রত্যেকটি যানই চলবে বিদ্যুতে।

তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, ফক্সকন ব্র্যান্ডিংয়ের সাথেই বৈদ্যুতিক যানবাহনগুলি বাজারে আসবে না। এগুলির বিকাশের পিছনে ফক্সকনের প্রধান উদ্দেশ্য, সরবরাহের বরাত নিয়ে যাতে তারা বিভিন্ন গাড়ি সংস্থার হয়ে উৎপাদন করতে পারে। তাই দু’টি গাড়ি এবং একটি বাস রেফারেন্স ডিজাইন হিসেবে উপস্থাপন করা হয়েছে। যাতে পরে গণউৎপাদনের আগে সেগুলিতে সংশ্লিষ্ট গাড়ি সংস্থার ইচ্ছানুযায়ী অদলবদল করা যায়।

মডেল টি গাড়িটি ২০২২ সালে এবং মডেল সি ২০২৩-এ প্রোটোটাইপ থেকে প্রোডাকশন মডেলে রূপান্তরিত করার লক্ষ্যমাত্রা নেওয়া হয়েছে। উল্লেখ্য, ফক্সকন এই মাসের শুরুতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ইভি স্টার্টআপ লর্ডসটাউনের (Lordstown) ওহিওস্থিত কারখানাটি কিনে নিয়েছে। এছাড়াও তারা উইনসকনসিনে একটি বড় কারখানা তৈরি করছে। সেখানে সেই বৈদ্যুতিক গাড়িগুলি উৎপাদিত হবে.

ফক্সকনের মডেল টি ইলেকট্রিক বাসের সর্বোচ্চ গতিসীমা ঘন্টা প্রতি ১২০ কিমি। অ্যাডভান্সড টেম্পারেচার ম্যানেজমেন্ট, এবং দুর্ঘটনা প্রতিরোধী নানা ফিচার রয়েছে এতে। অন্য দিকে মডেল সি ইলেকট্রিক এসইউভি গাড়িটি এক চার্জে ৭৫০ কিমি পর্যন্ত রেঞ্জ দেবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.