আপন ছেলের সাবেক স্ত্রীকে বিয়ে করলেন বাবা!

পরিবারের খোঁজ খবর কয়েক বছর ধরে রাখছিলেন না বাবা। সংসারে টাকা পয়সা দেওয়াও বন্ধ করে দিয়ে ছিলেন। এ কারণেই বাবাকে খুঁজে বেড়াচ্ছিলেন ছেলে। শেষ পর্যন্ত বাবার নতুন ঠিকানা খুঁজে পান তিনি। তবে বাবার সঙ্গে খুঁজে পান নিজের সাবেক স্ত্রীকেও।

সেই সাবেক স্ত্রী বর্তমানে ছেলেটির বাবার দ্বিতীয় স্ত্রী। সম্পর্কে ছেলেটির সৎমা। শুধু তাই নয়, বাবা ও ‘নতুন মায়ে’র সংসারে দুই বছরের এক ছেলেও রয়েছে। এই ঘটনা জানতে পেরে বাকরু’দ্ধ হয়ে যান ছেলে। পরে সাবেক স্ত্রীকে নিজের কাছে ফেরাতে পুলিশেও অ’ভি’যো’গ দেন।

এমনই এক ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশে। খবর- আনন্দবাজার। আনন্দবাজার পত্রিকার প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, বদায়ূঁ জেলার ২২ বছরের এক যুবকের বাবা অনেক আগে নিজের পরিবারকে ছেড়ে সম্ভল জেলায় আলাদা থাকতে শুরু করেন।

পেশায় পরিচ্ছন্নতাকর্মী ৪৮ বছরের ওই ব্যক্তি সংসারে টাকাপয়সা পাঠানও বন্ধ করে দেন। এরপর বাবার ঠিকানা জানতে তথ্য অধিকার আইনে (আরটিআই) মা’ম’লা করেন যুবক। তাতেই জানতে পারেন তার ‘নতুন মা’য়ের কথা।

২০১৬ সালে এই ‘নতুন মায়ে’র সঙ্গেই বিয়ে হয়েছিল ওই যুবকের। তবে সে সময় দু’জনেই ছিলেন অ’প্রা’প্ত বয়স্ক। সে বিয়ে টেকে মাত্র ছয় মাস। পরে মেয়েটি স্বামীকে ম”দ্য’প বলে দাবি করে বি’চ্ছে’দ নেন। এদিকে বাবার সঙ্গে সাবেক সেই স্ত্রীর বিয়েতে ক্ষু’’দ্ধ হয়ে থা’নায় অ’ভি’যো’গ করেছেন যুবক।

তার অ’ভিযো’গের পর দু’পক্ষকে আলোচনায় ডাকে বিসৌলি থা’না পুলিশ। যুবকের সাবেক স্ত্রীর দাবি, দ্বিতীয় পক্ষের সঙ্গে সুখে সংসার করছেন তিনি। তাই সাবেক স্বামীর কাছে ফিরতে চান না।

বিসৌলি থা’নার এক কর্মক’র্তা জানান, যুবকের প্রথম বিয়ের সময় দুজনই অ’প্রা’প্ত বয়স্ক ছিলেন। সে বিয়ের কোনো নথিও নেই। তাই ওই নারীকে আগের স্বামীর কাছে ফেরাতে ব্যবস্থা নেওয়া সম্ভব হয়নি। তবে ফের আলোচনার জন্য আরও একটি নোটিশ দেওয়া হবে দু’পক্ষকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *