ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘জোয়াদ’, ঝড়ের বেগ হবে ঘণ্টায় ১১৭ কি.মি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: চলতি বছরের ডিসেম্বরের শুরুতেই পূর্ব ভারতে আছড়ে পড়তে পারে প্রবল ঘূর্ণিঝড় ‘জোয়াদ’। নামটি দিয়েছেন সৌদি আরবের আবহাওয়াবিদরা।

আগামী ৪ ডিসেম্বর সকালের দিকে ঘূর্ণিঝড়টি উত্তর অন্ধ্রপ্রদেশ-ওড়িশা উপকূলের মধ্যে আছড়ে পড়তে পারে। তবে শেষমুহূর্তে পূর্ব উপকূলের গা ঘেঁষে বেরিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনাও থাকছে বলেই জানিয়েছে দেশটির আবহাওয়া অধিদ’প্ত র।

ভারতীয় আবহাওয়া ভবনের তরফে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার সকালে দক্ষিণ থাইল্যান্ড এবং এ সংল’গ্ন অঞ্চলে একটি নিম্নচাপ অবস্থান করছে।

যা আগামী ১২ ঘণ্টায় আন্দামান সাগরে পৌঁছে যাব’ে। তারপর পশ্চিম ও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে বৃহস্পতিবারের মধ্যে গভীর নিম্নচাপে পরিণত হবে। যা দক্ষিণ-পূর্ব ও তৎসংল’গ্ন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপ’সাগরে অবস্থান করবে।

পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বঙ্গোসাগরের ওপর তা ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হবে। তারপর আরও উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হবে সেই ঘূর্ণিঝড়। সেইসঙ্গে ক্রমাগত শক্তি বাড়াতে থাকবে। শেষপর্যন্ত শনিবার (৪ ডিসেম্বর) সকালের দিকে উত্তর অন্ধ্রপ্রদেশ-ওড়িশা উপকূলের মধ্যে আছড়ে পড়তে পারে।

কত থাকবে ঘূর্ণিঝড়ের বেগ? ভারতীয় আবহাওয়া ভবনের তরফে জানানো হয়, ঘণ্টায় ৮৯ কিলোমিটার থেকে ১১৭ কিলোমিটার বেগে বইতে পারে ঝড়।

তবে ঘূর্ণিঝড় জোয়াদ ওড়িশা উপকূলে আছড়ে পড়বে, নাকি ভারতের পূর্ব উপূকল ঘেঁষে বেরিয়ে যাব’ে- তা এখনও পুরোপুরি নিশ্চিত নয়। পূর্ব উপকূলের গা ঘেঁষে বেরিয়ে গেলেও ঘূর্ণিঝড়টির প্রভাবে ওই অঞ্চলে অতি ভারী বৃ’ষ্টির সম্ভাবনা থাকছে। ‘হতে পারে ক্ষয়ক্ষ’তিও।

কোথায় কোথায় বৃ’ষ্টি হবে?
উপকূলীয় ওড়িশায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃ’ষ্টিপাত হবে। কয়েকটি জায়গায় ‘বিক্ষি’প্ত ভাবে অত্যধিক ভারী বর্ষণের পূর্বাভাসও থাকছে। তৎসংল’গ্ন এলাকা তথা ওড়িশার একাধিক জেলা, পশ্চিমবঙ্গের উপকূলবর্তী জেলাগু’লো এবং উত্তর উপকূলীয় অন্ধ্রপ্রদেশে ‘বিক্ষি’প্ত ভাবে ভারী থেকে অতি ভারী বৃ’ষ্টি ‘হতে পারে।

এর পরের দিন অর্থাৎ আগামী ৫ ডিসেম্বর পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংল’গ্ন উত্তর উপকূলীয় ওড়িশার কয়েকটি জায়গায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃ’ষ্টিপাতের পূর্বাভাসও দিয়েছে ভারতীয় আবহাওয়া ভবন। সূত্র- হিন্দুস্তান টাইমস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *