আগামী ডিসেম্বরে আগারগাঁও পর্যন্ত চলবে মেট্রোরেল

স্বাধীনতার ৫০ বছরে দেশের অবকাঠামো খাতে অন্যতম বড় অর্জন মেট্রোরেল।

যে মেট্রোরেলকে ঘিরে রাজধানীর গণপরিবহন ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজানোর স্বপ্ন দেখছে বাংলাদেশ।

আগামী বছরের ডিসেম্বরে উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত চালু হবে সেই মেট্রোরেল। আর আগারগাঁও থেকে মতিঝিল পর্যন্ত পথটি চালু হচ্ছে ২০২৩ সালে।

তবে, প্রথম ধাপের মেট্রোরেল চালুর আগেই আগারগাঁওয়ে একটি বাসস্ট্যান্ড করার পরিকল্পনা রয়েছে মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষের।

উত্তরার দিয়াবাড়ি থেকে মিরপুর পর্যন্ত পথে প্রতিদিন পরীক্ষামূলকভাবে চলাচল করছে মেট্রোরেল।

গতিবেগ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ একশ’ কিলোমিটার থেকে সর্বনিম্ন পাঁচ কিলোমিটার। পথের বিভিন্ন পয়েন্টে গতি কমিয়ে বা বাড়িয়ে ঠিক করা হচ্ছে মেট্রোরেল চলার চূড়ান্ত গতি।

মেট্রোরেলের ২১.১ কিলোমিটার পথের মধ্যে ১৮.৫ কিলোমিটারের পথে ভায়াডাক্ট বসানোর কাজ শেষ।

এখন চলছে বিদ্যুতের খুঁটি বসানোর কাজ। উত্তরা থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত পৌনে ১২ কিলোমিটার পথে বিদ্যুতের লাইন বসানোর কাজও শেষ।

আরও পড়ুন: নতুন বছরে বাড়ছে না ক্লাসের সংখ্যা: দীপু মনি

মেট্রোরেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এমএএন ছিদ্দীক জানান, আগামী বছরের ডিসেম্বরে উত্তরার দিয়াবাড়ি থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত প্রায় পৌনে ১২ কিলোমিটার পথে চলাচল শুরু করবে দেশের প্রথম মেট্রোরেল।

কিন্তু উত্তরা থেকে যে যাত্রীরা আগারগাঁও এসে নামবেন, তারা কিভাবে বিভিন্ন গন্তব্যে পৌছাবেন সেটি একটি বড় প্রশ্ন।

এমন প্রশ্নের উত্তরে এমএএন ছিদ্দীক জানান, আগারগাঁওয়ে পুরাতন বিমানবন্দরের পাশে একটি বাসস্ট্যান্ড করার আলোচনা চলছে। যেখান থেকে বিআরটিসি বাসগুলোকে রাজধানীর বিভিন্ন গন্তব্যে যুক্ত করা হবে।

এই বাস সার্ভিস চলবে পরবর্তী এক বছর পর্যন্ত। ২০২৩ সালে আগারগাঁও থেকে মতিঝিল পর্যন্ত মেট্রোরেল পূর্নাঙ্গভাবে চালু হলে যাত্রীদের গন্তব্যে যাওয়ার পথটা আরও সহজ হয়ে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *