রাত ৮টার মধ্যে দোকানপাট বন্ধের নির্দেশ!

চট্টগ্রাম মহানগর এলাকায় আগামীকাল থেকে রাত ৮টার মধ্যে সকল প্রকার দোকানপাট বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন।

তবে শুধুমাত্র ওষুধের দোকান খোলা রাখা যাবে। আর নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে জেলা প্রশাসনের ১২টি মোবাইল টিম মাঠে থাকবে।

মঙ্গলবার (২২ জুন) বিকেল ৪টার দিকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে আয়োজিত করো’না ভাইরাস প্রতিরোধ সংক্রান্ত জেলা কমিটির সভা শেষে

এ ঘোষণা দেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান। অনুষ্ঠানে জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বিসহ জেলা করোনা নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসক বলেন, ‘মহানগর এলাকায় আগামীকাল (বুধবার) থেকে ওষুধের দোকান ছাড়া বাকি দোকান রাত ৮টার মধ্যে বন্ধ করতে হবে। এ নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে জেলা প্রশাসনের ১২টি মোবাইল টিম মাঠে থাকবে।

মহানগর এলাকায় মেয়রের নেতৃত্বে আলাদা করোনা প্রতিরোধ কমিটি আছে। ওই কমিটির প্রধান মেয়রকে আনুষ্ঠানিকভাবে চিঠি দিয়ে বিষয়টি জানানো হবে। যাতে তাদের কাউন্সিলরসহ সিদ্ধান্তটি বাস্তবায়ন করতে পারেন।’

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের উদ্দেশে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে প্রতিদিন বিশেষ করে ছুটির দিনে জনসমাগম হচ্ছে। এটি সং’ক্রম’ণ বাড়ার অন্যতম কারণ। তাই মেট্রোপলিটন পুলিশকেও চিঠি দেয়া হবে।

যাতে তারা সমুদ্র সৈকত এলাকার প্রবেশমুখে ব্যারিকেড দিয়ে যানচলাচল ও মানুষের প্রবেশ নিয়ন্ত্রণ করতে পারে।’ গণপরিবহনে শৃঙ্খলা আনা হবে জানিয়ে মমিনুর রহমান বলেন, ‘আগামীকাল থেকে বিআরটিএ কার্যালয়ের তিনজন এবং জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের একাধিক ম্যাজিস্ট্রেট মাঠে নামবে।

গণপরিবহনে বেশি ভাড়া, নির্দিষ্ট আসনের অর্ধেকের বেশি যাত্রী পরিবহন ও স্বাস্থ্যবিধি না মানার বিষয়টি কঠোরভাবে তদারকি করা হবে।’কমিউনিটি সেন্টারের মালিকদের উদ্দেশে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘অনেক কমিউনিটি সেন্টারে আমাদের অগো’চরে বিয়ের অনুষ্ঠান করা হচ্ছে। বিশেষ করে যেসব কমিউনিটি সেন্টার একটু রাস্তার ভেতরে, সেগুলোতে বিয়ে হচ্ছে। এ ধরনের খবর পেলে কমিউনিটি সেন্টারের মালিকসহ বিয়ে আয়োজকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

রেস্টুরেন্ট মালিকদের উদ্দেশে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে নির্দিষ্ট আসনের অর্ধেক কাস্টমার বসানোর কথা থাকলেও অনেকেই সম্পূর্ণ আসনে কাস্টমার বসিয়ে খাবার পরিবেশন করছেন। আগে আমরা এ বিষয় দেখলে জরিমানা কম করতাম। এখন সর্বোচ্চ জরিমানা করা হবে। কোনো রেস্টুরেন্টে দ্বিতীয়বার জরিমানার মুখোমুখি হলে ওই রেস্টুরেন্ট সিলগালা করা হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *