আমার মেজো মেয়ে আমাকে মামা ডাকে, এসব তো মানুষ দেখে না: সাকিব

বাংলাদেশের ক্রিকেটের পোস্টার বয় সাকিব আল হাসান। তাকে নিয়ে যেমন প্রশংসা হয় তেমনি সমালোচনাও কম হয়না।

কখনো টেস্ট খেলতে চান না, গুরুত্বপূর্ণ সিরিজ থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন সাকিব। এ নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার কমতি নেই।

কিন্তু সাকিব যে কতটা স্যাক্রিফাইস করেছে সেটা কি কখনও ভেবে দেখেছে ভক্তরা? স্ত্রী-সন্তানকে যুক্তরাষ্ট্রে রেখে মাসের পর মাস ফ্যামিলি থেকে দূরে থেকে খেলে যাচ্ছেন সাকিব।

এরপর ফ্যামিলির কাছে ছুটে যাওয়ার পর যদি তাকে তার মেয়ে মামা বলে ডাকে তখন কেমন লাগে? এমনটিই সবার কাছে প্রশ্ন সাকিবের।

সম্প্রতি ক্রীড়া সাংবাদিক উৎপল শুভ্রকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব নিয়ে কথা বলেন সাকিব। সাকিবকে জিজ্ঞেস করা হয়, এই যে এতদিন পরে গিয়ে আবার অনেক দিনের জন্য চলে আসেন, বাচ্চারা কীভাবে রিয়্যাক্ট করে?

জবাবে সাকিব বলেন, বড় মেয়ে অ্যালাইনার জন্য এটা অনেক কঠিন। বাকি দুইজন তো ছোট। ছোট দুইজন অনেক দিন ধরেই দেখছে আমি অন অ্যান্ড অফ, অন অ্যান্ড অফ।

আমি যাওয়ার পর আমার মেজো মেয়ে আমাকে ডাকছে ‘মামা’ ‘মামা’ করে। বাবাকে মামা ডাকলে কেমন লাগে চিন্তা করেন।তিনি বলেন, ও তো দেখছে ওর বাব টিভিতে।

এখন যে এসেছে সে আরেকটা মামা। আসার কয়েকদিন আগে বাবা-বাবা ডাকা শুরু হয়। কিন্তু এরপর তো আমি চলে আসি।

আবার যখন যাবো তখন হয়তো চাচা, মামা, খালুও ডাকতে পারে।দেশসেরা এই অলরাউন্ডার বলেন, মানুষ এসব বুঝবে না যতক্ষন না সে আমার জায়গায় আসবে।

তাই কে কি বললো এসব নিয়ে আমি ভাবি না। মানুষ শুধু ভাবে আমি খেলতে চাই কি চাই না। কিন্তু আমি যে কতটা স্যাক্রিফাইস করছি সেটা মানুষ দেখছে না।

তিনি আরও বলেন, কাউকে বলেন ফ্যামিলি ছাড়া একা থাকতে, দেখি কয়জন এটা পারে।আপনি আমাকে আরেকটা খেলোয়াড় দেখান যে মাসের পর মাস একা ফ্যামিলি ছাড়া খেলছে।

বাংলাদেশ তো বাদই দিলাম, আপনি বিশ্ব ক্রিকেটের আর একজন খেলোয়াড় দেখান না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *