ইসি গঠনে ইকবাল সোবহান চৌধুরীসহ ৫ নাম প্রস্তাব ইসলামী ফ্রন্টের

চলমান সংলাপে অংশ নিয়ে নতুন নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্য উপদেষ্টা ও দ্য ডেইলি অবজারভারের সম্পাদক ইকবাল সোবহান চৌধুরীসহ পাঁচজনের নাম প্রস্তাব করেছে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট। এছাড়া দলটির পক্ষ থেকে ইসি গঠনে তিনটি প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টায় ছয় সদস্যবিশিষ্ট একটি প্রতিনিধি দল রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপ শেষে বঙ্গভবন থেকে বেরিয়ে ইসলামী ফ্রন্টের মহাসচিব এম এ মতিন সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

ইসলামী ফ্রন্টের এই নেতা বলেন, তাদের দলের পক্ষ থেকে চলমান সংলাপে বিশিষ্ট পাঁচ ব্যক্তির সমন্বয়ে নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রস্তাব করা হয়েছে। তারা হলেন- সাবেক মুখ্য সচিব সৈয়দ মুহাম্মদ আব্দুল করিম,

মেজর জেনারেল (অব.) হারুনুর রশীদ বীর বিক্রম, ইকবাল সোবহান চৌধুরী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ আল মারুফ ও শাইখুল হাদীছ আল্লামা কাযী মঈনুদ্দীন আশরাফী।

এছাড়া নির্বাচন কমিশন গঠন সংক্রান্ত স্থায়ী সমাধানের জন্য রাষ্ট্রপতি বরাবর তিনটি প্রস্তাব দিয়েছে দলটি। সেগুলোর মধ্যে রয়েছে- বিদ্যমান সাংবিধানিক ধারা সংশোধন করে স্বাধীন নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠন,

নির্বাচনকালীন গুরুত্বপূর্ণ পাঁচ মন্ত্রণালয় স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের অধীনে ন্যস্ত করা এবং প্রয়োজনে নতুন ইসি গঠনে পার্শ্ববর্তী দেশসহ উন্নত দেশগুলোর মডেল অনুসরণ করা। ইসলামী ফ্রন্টের মহাসচিব বলেন, আমরা নির্বাচন কমিশন গঠন সংক্রান্ত স্থায়ী সমাধানের জন্য বিদ্যমান সাংবিধানিক ধারা সংশোধন করে স্বাধীন নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন গঠনের প্রস্তাব করেছি।

এছাড়া নির্বাচনকালে গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রণালয়গুলো যেমন- স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়, স্থানীয় সরকার ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়, সংস্থাপন মন্ত্রণালয় এবং অর্থ মন্ত্রণালয় স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের অধীনে ন্যস্ত থাকা দরকার।

অনির্বাচিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার বা নির্বাচনকালীন সরকার ব্যবস্থা অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য স্থায়ী কোনো সমাধান নয় দাবি করে তিনি আরও বলেন, তারা ব্যর্থ এটি ইতোমধ্যে প্রমাণিত হয়েছে। এ বিষয়ে পার্শ্ববর্তী দেশসহ উন্নত দেশগুলোর মডেল অনুসরণ করা প্রয়োজন।

রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ তাদের এ প্রস্তাবগুলো গুরুত্ব দিয়ে দেখবেন বলেও জানান দলটির মহাসচিব। এসময় উপস্থিত ছিলেন দলের চেয়ারম্যান মাওলানা এম এ মান্নান, প্রেসিডিয়াম সদস্য আল্লামা ড. আফজাল হোসাইন, পিরে ত্বরিকত আল্লামা সৈয়দ মুসিহুদ্দৌলা, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অধ্যক্ষ স.উ.ম আবদুস সামাদ, সাংগঠনিক সচিব সৈয়দ মুজাফফর আহমদ মুজাদ্দেদী প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *