ভালোবাসা দিবসের দিন কোর্টে থাকতে হবে, এটা কষ্টের: জায়েদ খান

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনে সাধারণ সম্পাদক পদ নিয়ে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তারের আবেদনের

ওপর আপিল বিভাগে আজ রোববার (১৩ ফেব্রুয়ারি) শুনানি হওয়ার কথা ছিল। এ বিষয়ে আপিল বিভাগে শুনানি হবে আগামীকাল সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি)।

শুনানি একদিন পিছিয়ে আগামীকাল নির্ধারণ করেছেন আদালত। জায়েদ খান ও নিপুণের মধ্যে শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক কে হবে সেটা সেখানেই নিষ্পত্তি হবে। তাই আগামীকালের আদালতের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করতে হবে জায়েদ-নিপুণকে।

এদিকে আগামীকাল ১৪ই ফেব্রুয়ারি বিশ্ব ভালোবাসা দিবস। ভালোবাসা দিবসে কোর্টের বারান্দায় ঘুরতে হবে জায়েদকে। বিষয়টিকে কষ্টের বলে অ্যাখ্যা দিয়েছেন তিনি। তিনি বলেন, নির্বাচিত হয়েও ভালোবাসা দিবসের দিন কোর্টে থাকতে হবে। এটা খুবই কষ্টের। এটি আমার জন্য খুব খারাপ অভিজ্ঞতা।

উল্লেখ্য, গত ২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০২২-২৪ মেয়াদের নির্বাচনের প্রাথমিক ফলে সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খানকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। তবে তার বিরুদ্ধে টাকা দিয়ে ভোট কেনাসহ নির্বাচনকে প্রভাবিত করার অভিযোগ আনলে ৫ ফেব্রুয়ারি সেই প্রেক্ষিতে আপিল বোর্ড জায়েদের প্রার্থিতা বাতিল করে।

পরে ৭ ফেব্রুয়ারি আপিল বোর্ডের প্রার্থিতা বাতিলের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট দায়ের করেন জায়েদ খান। হাইকোর্ট আপিল বোর্ডের সিদ্ধান্ত স্থগিত ঘোষণা করেন। একইসঙ্গে জায়েদ খানের প্রার্থিতা বাতিলের সিদ্ধান্ত কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে আপিল আবেদন জানান নিপুণ। রোববার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে এ বিষয়ে শুনানির কথা থাকলেও তা পিছিয়ে আগামীকাল সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.